Jokes Adult
Post #1
hmrab|| 
Members

15/11/2014 15:39:48
(131 weeks ago)
Ratio: 0.42
Posts: 1
Bangladesh  
smile1.gif
top

Post #2
hannan007|| 
Elite User

16/11/2014 07:36:40
(131 weeks ago)
Ratio: 2.91
Posts: 6
Bangladesh  

rony_504 wrote:
পায়ে পাড়া...

বাবাঃ কিরে কাঁদছিস কেন ???

ছেলেঃ ঐ বুড়ো লোকটার পায়ে পাড়া মেরেছিলাম।

বাবাঃ সে কি! উনার কাছে ক্ষমা চাসনি?

ছেলেঃ হ্যাঁ চেয়েছি।

বাবাঃ তবু মারলো? চলতো গিয়ে দেখি।

বাবা বুড়োকে গিয়ে বললঃ কি ব্যাপার চাচা, ছেলেটা আপনার কাছে ক্ষমা চাইলো, তাও ওকে এভাবে মারলেন?

বুড়োঃ সাধে কি আর মারছি? তোমার পোলায় আমার পায়ে পাড়া দিয়া সরি কইলো।

আমি তার ভদ্রতায় খুশি হইয়া তারে ১০টা টাকা দিলাম হারামজাদা টাকার লোভে আবার আমার পায়ে পাড়া মারলো laugh.gif

nice hoiece boss


_______________________________________________

top

Post #3
Afjal_RaHMaN|
Quality Control Team

05/12/2014 05:50:16
(128 weeks ago)
Ratio: 163.10
Posts: 84
Bangladesh  
মঞ্জু ও বাবুল খেতে কাজ করছিল। একটু দূরেই গাছের ছায়ায় বসে আরাম করছিল সগীর।
মঞ্জু বলল বাবুলকে, ‘এই কড়া রোদে আমরা কাজ করছি। আর ওই ব্যাটা আয়েশ করে বসে আছে কেন?’
বাবুল বলল, ‘তাই তো! দাঁড়া, গিয়ে জিজ্ঞেস করে আসি।’
বাবুল গেল সগীরের কাছে, ‘এই যে নবাব! আমরা কাজ করছি, আর আপনি হাত-পা গুটিয়ে বসে আছেন কেন?’
সগীর হাসে। বলে, ‘কারণ, আমি বুদ্ধিমান।’
‘কীভাবে?’ বাবুলের প্রশ্ন।
‘দাঁড়া, দেখাচ্ছি।’ সগীর তাঁর এক হাত একটা বড় পাথরের সামনে ধরে বলে, ‘আমার হাতে জোরে একটা ঘুষি মার তো দেখি।’
বাবুল যেই ঘুষি মারতে গেছে, অমনি সগীর হাত সরিয়ে ফেলে। ঘুষি লাগে পাথরের গায়ে। ব্যথায় ককিয়ে ওঠে বাবুল।
সগীর হো হো করে হেসে ওঠে, ‘দেখলি তো, তোকে কেমন বোকা বানালাম। একেই বলে বুদ্ধি।’
মন খারাপ করে বাবুল যায় মঞ্জুর কাছে। মাথা নিচু করে বলে, ‘ও বসে আছে। কারণ ও বুদ্ধিমান।’
‘কেমন বুদ্ধি?’ এবার মঞ্জুর জিজ্ঞাসা।
বাবুলের চোখ আনন্দে ঝলমল করে ওঠে। হাসিমুখে সে বলে, ‘দেখতে চাস?’ নিজের নাকের কাছে হাত রেখে সে বলে, ‘আমার হাতে একটা জোরে ঘুষি মার তো দেখি…


_______________________________________________




top

Post #4
Afjal_RaHMaN|
Quality Control Team

05/12/2014 05:52:34
(128 weeks ago)
Ratio: 163.10
Posts: 84
Bangladesh  
হাবলু ভীষণ অলস। একদিন ঘটনাক্রমে সে একটা জাদুর প্রদীপ পেল। প্রদীপ ঘষতেই হাজির হলো দৈত্য। দৈত্য বলল, ‘আমি তোমার তিনটা ইচ্ছা পূরণ করব। ঝটপট বলো।’
হাবলু বলল, ‘আমি একটা পোষা ঘোড়া, একজন কুস্তিগীর আর একটা পিপড়া চাই।’
দৈত্য: ঘোড়া কেন?
হাবলু: বাইরে একে তো প্রচণ্ড রোদ, তার ওপর যানজট। আমি ঘোড়ার পিঠে চড়ে এক ছুটে এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় যেতে চাই।
দৈত্য: কুস্তিগীর দিয়ে কী হবে?
হাবলু: কুস্তিগীর আমাকে ঘোড়ার পিঠে তুলে দেবে।
দৈত্য: তা তো বুঝলাম। কিন্তু পিঁপড়া কেন?
হাবলু: ঘোড়া কি কষ্ট করে আমি ছোটাব নাকি? পিঁপড়া কামড় দেবে আর ঘোড়া ছুটবে! ......

tongue.gif tongue.gif tongue.gif tongue.gif


_______________________________________________




top

Post #5
Afjal_RaHMaN|
Quality Control Team

05/12/2014 05:53:47
(128 weeks ago)
Ratio: 163.10
Posts: 84
Bangladesh  
মিস্টার রবার্ট আর মিসেস রবার্ট দুজন প্রায়ই একটি বেসরকারি বিমানবন্দরে বেড়াতে যান। সুন্দর, ছোট্ট বিমানগুলো দেখে রবার্ট মাঝেমধ্যে স্ত্রীকে বলেন, ‘আমরা যদি একদিন এমন একটি বিমানে ঘুরে বেড়াতে পারতাম!’‘ মাথা খারাপ! অমন একটা বিমানে চড়তে ১০০ ডলার লাগে। ১০০ ডলার মানে কিন্তু ১০০ ডলারই, এক পয়সাও কম হবে না!’ স্বামীকে বোঝান মিসেস রবার্ট।
এভাবে এক দিন, দুই দিন, তিন দিন…প্রতিদিন মিস্টার রবার্টের একই আবদার। মিসেস রবার্টেরও একই কথা, ‘…১০০ ডলার মানে কিন্তু ১০০ ডলারই, এক পয়সাও কম হবে না!’
অবশেষে একদিন একজন বৈমানিক তাঁদের প্রতি সদয় হলেন। বললেন, ‘আমি তোমাদের বিনা মূল্যে আকাশটা ঘুরিয়ে আনতে পারি এক শর্তে। তোমরা একটা টুঁ শব্দ করতে পারবে না। যদি করো, তাহলে ১০০ ডলার দিতে হবে। ১০০ ডলার মানে কিন্তু ১০০ ডলারই, এক পয়সাও কম হবে না!’
মিস্টার আর মিসেস রবার্টকে নিয়ে বিমান আকাশে উড়ল। তাঁদের ভয় দেখানোর জন্য বৈমানিক আকাশে বেশ কয়েকবার ডিগবাজি খেলেন, মাটির খুব কাছাকাছি দিয়ে ছুটে গেলেন, প্রচণ্ড ঝাঁকি দিলেন। পেছনে টুঁ শব্দটাও হলো না। নিচে নেমে বৈমানিক বললেন, ‘কীভাবে পারলেন আপনারা?’
রবার্ট বললেন, ‘আমার স্ত্রী যখন জানালা দিয়ে পড়ে গেল, তখন একবার কথা বলব ভেবেছিলাম। কিন্তু চুপ মেরে গেছি। মুখ খুললেই তো ১০০ ডলার! আর আপনি তো জানেন, ১০০ ডলার মানে কিন্তু ১০০ ডলারই, এক পয়সাও কম হবে না!’

grin.gif grin.gif


_______________________________________________




top

Post #6
munnaislam1997|
Members

29/01/2015 07:50:48
(120 weeks ago)
Ratio: 2.96
Posts: 40
Bangladesh  
ইলিয়াস আকরামÕ
বাংলাদেশে দূর্নিতি দমন কমিশন (দূদক) আছে
আমি ভাবলাম আমার গ্রামে দুদকের খুব একটা দরকার নাই,
তবে প্রয়োজননুসারে আমরা বন্ধুরা মিলে একটা সংগঠন করেছি।
যার নাম হলো (চুদক) মানে
,
,
,
,
,
,
,
,
,
,
চুর দমন কমিশন।

wink.gif wink.gif wink.gif

Last edited by munnaislam1997 at 29/01/2015 08:09:20


_______________________________________________

top

Post #7
munnaislam1997|
Members

29/01/2015 07:52:24
(120 weeks ago)
Ratio: 2.96
Posts: 40
Bangladesh  
বালকঃ আই লাভ ইউ।
বালিকাঃ কি করতে পারবা আমার জন্য?
বালকঃ তাজমহল বানাবো।
বালিকাঃ কোথাকার রাজা তুমি?
বালকঃ আমি আমার মনের রাজা!
বালিকাঃ ও, ফকিন্নি মার্কা রাজা!!!
বালকঃ অবহেলা করো না বালিকা, হয়তো আমার কাছে আমার বন্ধুর মত গাড়ি নেই, বড় ঘর নেই; কিন্তু তোমাক মাথায় নিয়ে ঘুরাবো, এই বুকে রাখব তোমায়,

বালিকাঃ আচ্ছা । তোমার বন্ধুর নাম্বার দাও।
বালকঃ বন্ধুর নাম্বার দিয়া কি করবা?
বালিকাঃ তুমি না আমায় ভালোবাসো?
বালকঃ খুব!
বালিকাঃ চাওনা আমি সুখে থাকি?
বালকঃ অবশ্যই!!!

বালিকাঃ এ জন্যে তোমার বন্ধুকেই আমারচাই –। যার এত কিছু আছে, তার কাছে তো সুখেই থাকার কথা।
বালকঃ ( মলিন মুখে) এই নাও।
বালিকাঃ থ্যাঙ্কু – বাবু ।বাইই।
বালকঃ দোস্ত অপারেশন সাকসেস। তোর নাম্বার নিয়া নিছে, অপেক্ষায় থাক – মিসড কল, আসলেই ব্যাক করবি।

দোস্তঃ থ্যাঙ্ক ইউ দোস্ত, এই গরিবের মহা উপকার করলি – কিচ্ছু না দিতে পারলেও
দোয়া দিমু smile1.gif

grin.gif grin.gif grin.gif

Last edited by munnaislam1997 at 29/01/2015 08:10:00


_______________________________________________

top

Post #8
munnaislam1997|
Members

29/01/2015 07:53:52
(120 weeks ago)
Ratio: 2.96
Posts: 40
Bangladesh  
শানি লিয়ন ও হানি সিং এর মধ্যে হল
শানি লিয়নঃ ইয়া ইয়া
হানি সিংঃ ইয় ইয়

grin.gif tongue.gif grin.gif

Last edited by munnaislam1997 at 29/01/2015 08:11:28


_______________________________________________

top

Post #9
munnaislam1997|
Members

29/01/2015 07:59:12
(120 weeks ago)
Ratio: 2.96
Posts: 40
Bangladesh  
বাবা ও ছেলের মধো কথোপকথন
ছেলে : বাবা আমি বিয়ে করবো ১৮
বছরের একটি মেয়ে দেখ…..।
বাবা : যদি ১৮ বছরের
মেয়ে না পাই ???
ছেলে:তাহলে.
:
:
:
:
:
:
:
:
৯ বছরের ২টা হলেও
চলবে।
বাবা : হারামজাদা কি বললি……!?!

ohmy.gif ohmy.gif tongue.gif

Last edited by munnaislam1997 at 29/01/2015 08:12:35


_______________________________________________

top

Post #10
munnaislam1997|
Members

29/01/2015 08:00:44
(120 weeks ago)
Ratio: 2.96
Posts: 40
Bangladesh  
চান্দু গেলো ” কে হতে চায় কোটিপতি ” অনুষ্ঠানে !!
১০০০ টাকার জন্য চান্দুকে প্রশ্ন করা হলঃ
আপনার বাবার নাম কি ??
অপশনগুলো হচ্ছে,
A. Amir Khan.
B. Shah Rukh Khan.
C. মখলেস মিয়াঁ
D. Sachin Tendulkar.
চান্দু অনেকক্ষণ ভাবার পর
বললঃ আমি লাইফ লাইন নিতে চাই । ৫০-৫০।
দুটো অপশন মুছে গেলো,
রইলঃ
C. মখলেস মিয়াঁ
D. Sachin Tendulkar.
চান্দু তবুও নিশ্চিত নয়। বলল,
আমি দর্শকদের সাহায্য
নিতে চাই ।
দর্শক ভোটিং এর রেসাল্টঃ
C. মখলেস মিয়াঁ (৮০% )
D. Sachin Tendulkar. (২০% )

চান্দু, এবারো নিশ্চিত নয় । বলল, আমি আমার শেষ অপশন ফোন ফ্রেন্ড ব্যাবহার করতে চাই ।
উপস্থাপকঃ আপনি কাকে ফোন করতে চান ?
.
.
.
চান্দুঃ আমার বাবা , জনাব মখলেস মিয়াঁকে !!
.
উপস্থাপক অজ্ঞান ! !! লেও ঠ্যালা !
হা..হা…হা….হা…..হা

tongue.gif tongue.gif smile1.gif

Last edited by munnaislam1997 at 29/01/2015 08:12:59


_______________________________________________

top